কুমিল্লায় বাহনের সাথে খাবারও পেলো চালকরা

২২৫

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বের হওয়া ছয়’শ ব্যাটারি ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সা চালককে আটক করা হয়। পুলিশ লাইনে রাখা হয় আটক বাহনগুলোকে। এসব অটোরিক্সা ও সিএনজি চালকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর ও পুলিশ সুপার মো: সৈয়দ নুরুল ইসলাম। সোমবার বিকালে কুমিল্লা পুলিশ লাইনসে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার ব্যাটারি ও সিএনজি চালিত অটোরিকসার চালকদের হাতে খাবার সামগ্রী তুলে দিয়ে বাহনগুলো ছেড়ে দেন।
পুলিশ সুপার মো: সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, জনসমাগম বন্ধে পুলিশ নগরীর রাস্তায় বের হওয়া ব্যাটারি ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সাগুলোকে আটক করে পুলিশ লাইনসে রাখে।

আজ ওইসব বাহন চালকদের কাছে বাহনগুলি ফিরিয়ে দিয়েছি। এছাড়াও সবার হাতে এক ব্যাগ করে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছি। পাশাপাশি তাদেরকে সর্তক করে দিয়েছি। তারা যেন করোনা সংক্রমণের এই সময়ে বাহন নিয়ে ঘর থেকে বের না হয়।
কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর বলেন, আমরা জানি তারা খাবারের জন্য ঘর থেকে বের হয়েছিলো। তাই তাদেরকে খাবার দিয়ে বলে দিয়েছি করোনা সংক্রমণের সময় যেন আর না বের হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(উত্তর) মোহাম্মদ শাখাওয়াৎ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিম-উল আহসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমনসহ জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকতাবৃন্দ।

আরো পড়ুন: