নাগরিকদের ঢাকা ত্যাগে বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করল মার্কিন দূতাবাস

৫৭

করোনাভাইরাসের এ সময়ে ঢাকা ত্যাগে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্য একটি বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে দেশটি। ফ্লাইটটি সোমবার (৩০ মার্চ) শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঢাকা ত্যাগ করবে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র বিভাগ ও বাংলাদেশে অবস্থিত দেশটির দূতাবাস এ বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে। তবে ফ্লাইটটি প্রথমে ঢাকা থেকে কাতারের দোহায় অবতরণ করবে। সেখানে অবতরণের পর কোনো যাত্রী প্লেন থেকে বের হতে পারবে না। এরপর ওয়াশিংটনের ডুলেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে উড়বে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের বহনকারী প্লেনটি।

বাংলাদেশে অবস্থিত দেশটির দূতাবাসের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে এ সব তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, ফ্লাইটে যুক্ত হলে প্রতিজনকে ভাড়া হিসেবে অর্থ পরিশোধ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে ইকোনমি ফ্লাইটের ভাড়ার সমপরিমাণ অর্থ নির্ধারণ করা হয়েছে। এ জন্য বিমানবন্দর অতিক্রমের পূর্বে প্রত্যেক যাত্রীকে একটি প্রতিশ্রুতি নোটে স্বাক্ষর করতে হবে। যেটি বোর্ডিং পাসের পূর্বে কর্তৃপক্ষের কাছে প্রদর্শন করতে হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এয়ারপোর্টে কোনো ধরনের ক্যাশ ও ক্রেডিট কার্ড লেনদেন গ্রহণযোগ্য হবে না। পরবর্তীতে এ অর্থ নেয়া হবে। এ যাত্রায় ফ্লাইট ব্যতীত যাত্রীদের জন্য আর কোনো যানবাহনের ব্যবস্থা করেনি দূতাবাস। বিমানবন্দর আগমন ও ত্যাগের ক্ষেত্রে পরিবহন যাত্রীদের ব্যবস্থা করতে হবে। পরবর্তী বুকিংও দিতে সমর্থ হয়নি দূতাবাস।

এ ফ্লাইটের সময়সূচি পরিবর্তন হতে পারে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া বিমানবন্দরে যাওয়ার সময় সব যাত্রীকে একটি করে কল নিতে দূতাবাসের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

মেইলে যা দিতে হবে- পুরো নাম, পাসপোর্ট ইস্যু ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ, নাগরিকত্ব, জন্ম তারিখ, জন্মস্থান, লিঙ্গ, ই-মেইলের ঠিকানা, মোবাইল নম্বর। পরিবারের সবার তথ্য দিতে সেখানে বলা হয়েছে।

আরো পড়ুন: