পাকিস্তান সফর : পিসিবির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বিসিবি

৭১

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তৃতীয় দফা পাকিস্তান খেলতে যাবার সম্ভাবনা খুব কম। আগামী ১ এপ্রিল করাচিতে একটিমাত্র ওয়ানডে আর ৫ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এক টেস্ট খেলতে ২৯ না হয় ৩০ মার্চ করাচি যাবার কথা ছিল বাংলাদেশ জাতীয় দলের। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সে সফর স্থগিত হয়ে যেতে পারে। গত ১১ মার্চ জাগো নিউজের পাঠকরা এমনটাই জেনেছিলেন।

অবশ্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সরাসরি সফরের ঐ অংশ বাতিল করার ঘোষণা না দিলেও পরিস্থিতির নিবিড় পর্যবেক্ষণ করছে। এবং আজ শনিবার বিসিবির প্রধান নির্বাহীর কথা শুনে মনে হলো বিসিবিও ধরে নিয়েছে ঐ সফর আপাতত হবেনা।

তবে বিসিবি সিইও‘র কন্ঠে পরিষ্কার ইঙ্গিত, তারা এখনই নিজেরা যেচে ‘না’ বলতে চাচ্ছেন না। যেহেতু স্বাগতিক পাকিস্তান, তাই বিসিবি চাচ্ছে ঐ এক ওয়ানডে ও টেস্ট আপাতত স্থগিতের ঘোষণাটি পিসিবির কাছ থেকেই আসুক।

আজ প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের টাইটেল স্পন্সর ঘোষণার অনুষ্ঠানেও প্রশ্ন উঠলো জাতীয় দলের পাকিস্তান সফরের কি অবস্থা? গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের কারণে অনেক আন্তর্জাতিক আসর ও সিরিজ বন্ধ। এরকম অবস্থায় জাতীয় দল কি করাচি যাবে? বিসিবি কি ভাবছে?

এমন প্রশ্নর জবাবে নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘পাকিস্তান আয়োজক দেশ। তাই সিদ্ধান্তটা তারাই নেবে। আমরা দেখি পাকিস্তান কি সিদ্ধান্ত নেয়। আপনারা দেখেছেন, তাদের ঘরোয়া যে প্রতিযোগিতা (পিএসএল) হচ্ছে সেখান থেকে ৯ -১০ জন বিদেশি খেলোয়াড় চলে গেছে। আমরা পাকিস্তানের সিদ্ধান্ত জানার অপেক্ষায় আছি। আমরা তো সফরকারি দল। আমরা যে কোনো সময়ই সিদ্ধান্ত নিতে পারি। ট্রাভেল অ্যাডভাইজরি কিন্তু এখন প্রতিদিন নতুন করে তৈরি হচ্ছে। মুভমেন্টের জন্য করণীয় আসছে নতুন করে। আমরা অবশ্যই এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন এবং ক্লোজ মনিটরিংয়ে রাখছি। আমরা প্রত্যাশা করছি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড খুব শিগগিরিই তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।’

আরো পড়ুন: